নায়িকা কাজলের সুখী জীবনের পেছনে লুকি’য়ে আছে এক ক’ষ্টের গল্প

বলিউডের সুখী দম্পতি অজয় দেবগন ও কাজলের সংসার ভালোবাসায় ভরি’য়ে রেখেছে তাদের দুই সন্তান নিশা ও নাইশা। দুই মেয়েকে প্রচুর সময় দেন কাজল। দেশ-বিদেশে তাদের নিয়ে ঘুরে বেড়ান। মেয়েদের সঙ্গে নিয়ে ছবি পোস্ট করেন ইনস্টাগ্রামে।

এই সুন্দর সুখী জীবনের পেছনে লুকি’য়ে আছে এক ক’ষ্টের গল্প। দাম্পত্য জীবনের ২১ বছর পর সেই ক’ষ্টের গল্প প্রকাশ হয়েছে হিউম্যানস অব মুম্বাই নামের এক ইন্সটাগ্রামে। বলিউডের জনপ্রিয় এই নায়িকা জানালেন, ২০০১ সালে ‘কাভি খুশি কাভি গাম’ সিনেমার শুটিংয়ের সময়ে তিনি অ’ন্তঃস’ত্ত্বা ছিলেন। কিন্তু হঠাত্ই মি’সক্যা’রেজ হয়।

ছবি মুক্তির দিন হাসপাতালে কেটেছে কাজলের। তার ছবি যখন সুপারহিট, তখন তিনি হাসপাতালে মানসি’ক য’ন্ত্রনা’য় ছ’টফ’ট করেছে। গ’র্ভের প্রথম সন্তানের মুখ না দেখতে পারার ক’ষ্ট সিনেমার সফলতার আনন্দ কে’ড়ে নিয়েছে। এরপর আরও একবার মি’সক্যা’রেজ হয়। এভাবে একে একে গ’র্ভেই মা’রা গেছে কাজলের দুই সন্তান।

এরপর নাইসা ও যুগ- দুই সন্তানের মা হয়েছেনি কাজল। অভিনয় থেকে নিজেকে গু’টিয়ে নিয়ে সন্তানদের বড় করেছেন অনেক যত্ন করে। নায়িকা কাজল ক্যারিয়ারের মা’য়া ভুলে মায়ের দায়িত্ব পালন করেছেন শতভাগ। সন্তানেরা এখন বড় হয়ে গেছে। আবারও অভিনয় করছেন নিয়মিত।

২৫ বছর আগে ‘হালচল’ ছবির সেটে কাজলের সঙ্গে প্রথম দেখা অজয়ের। ৪ বছরের সম্পর্কের পর বিয়ে করতে চাইলে কাজলের বাবা তার সঙ্গে চারদদিন কথা বলেননি। এরপর মিডিয়াকে অ’ন্ধকা’রে রেখেই বিয়ে করে ফেলেন তারা। ৫ সপ্তাহ কাটান হানিমুনে। একাধিক দেশে ঘো’রেন সেই সময়। এরপরের গল্প সবার জানা

Add Comment